Wednesday, July 24, 2024
spot_img
More

    তিতাসে শত্রুতার জের ধরে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের অভিযোগ

    সিটিভি নিউজ।। হালিম সৈকত, কুমিল্লা।। সংবাদদাতা জানান ====
    কুমিল্লার তিতাসে শত্রুতার জের ধরে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধন করার অভিযোগ উঠেছে। ৭০ শতাংশের একটি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে লক্ষাধিক টাকার মাছ মেরে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার (১৭ মে) রাতে উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের খলিলাবাদ গ্রামের বাসিন্দা নারান্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো: সেলিম এর পুকুরে এ ঘটনা ঘটে।
    বিষ প্রয়োগের ফলে পুকুরের প্রায় লক্ষাধিক টাকার মাছ মরে ভেসে উঠেছে বলে জানান সাবেক চেয়ারম্যান সেলিম।
    এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবার ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম অভিযোগ তুলে জানান, প্রায় ৭০ শতক জায়গার উপর এ পুকুরটি দীর্ঘ দিন ধরে মাছ চাষ করছি। এবার পুকুরে নানা ধরনের দেশীয় বিভিন্ন জাতের মাছ চাষ করেছি। এতে আমার প্রায় ৩ লাখ টাকা খরচ হয়েছে। কিছু দিনের মধ্যেই মাছগুলো বাজারে বিক্রির উপযোগী হয়ে উঠতো। শুক্রবার রাতে কয়েকজন লোক আমার পুকুরের আশপাশে ঘোরাঘুরি করেছে বলে জানান আমাদের পাড়া প্রতিবেশীরা। পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই এমন কাজ করেছে। সকালে পুকুরের পাড়ে বিষের মোড়ানো প্যাকেট পড়ে থাকতে দেখি। পুকুরে বিষ প্রয়োগের কারণেই সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। এতে আমাদের প্রায় লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ধারণা করছি। এমন ঘটনা কারা ঘটাতে পারে বলে আপনারা মনে করছেন? এমন প্রশ্নে তারা আরও বলেন, ঘটনার সাথে শাখাওয়াত, বিল্লাল, ছাব্বিরসহ অজ্ঞাত আরও দুই থেকে তিনিজন ব্যক্তি জড়িত আছে আমরা স্থানীয় পাড়া প্রতিবেশীদের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। আর তাদের সাথে আমাদের বাড়ির রাস্তার জায়গার সীমানা নিয়েও কিছুদিন ধরে নানা ঝামেলা চলছে সন্দেহের তালিকায় তারা থেকেই যায়। আমরা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করবো। প্রশাসনের নিকট আমাদের দাবী সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এ অপরাধের সাথে যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা হোক।

    এবিষয়ে অভিযুক্ত শাখাওয়াত ও সাব্বির বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। সাজানো নাটক। এঘটনার সাথে আমরা জড়িত নই।

    তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাঞ্চন কান্তি দাশ বলেন, ঘটনাটি আমাকে অবগত করা হয়েছে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সংবাদ প্রকাশঃ ১৮-০৫-২০২৪ ইং সিটিভি নিউজ এর (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like> See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ছবিতে ক্লিক করুন=

    আরো সংবাদ পড়ুন

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -
    Google search engine

    সর্বশেষ সংবাদ

    Recent Comments