কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

সিটিভি নিউজ।।   বুড়িচংয়ে পুলিশের সঙ্গে ডাকাতদলের বন্ধুকযুদ্ধ ৩ ডাকাত নিহত, ওসিসহ ৫পুলিশ আহত,অস্ত্র উদ্ধার

সৌরভ মাহমুদ হারুন   বুড়িচং(কুমিল্লা) প্রতিনিধি   জানান===
 কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার পীর যাত্রাপুর ইউনিয়নের কোমাল্লা গ্রামে পুলিশের সঙ্গে ডাকাতদলের বন্দুক যুদ্ধে ৩ আনঃ জেলা কুখ্যাত  ডাকাত সর্দার নিহত হয়েছে। বুড়িচং থানার ওসিসহ ৫পুলিশ আহত। ঘটনাস্থল থেকে ৭টি মুখোশ,একটি পিস্তল,১টি পাইপগান,৪রাউন্ড গুলিসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার।
পুলিশ সূত্র জানায় রোববার দিবাগতরাত আড়াইটায় জেলার বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের কোমাল্লা গ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে পুলিশের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধের  ঘটনাটি ঘটে।
বুড়িচং থানার ওসি তদন্ত সাফায়েত হোসেন জানান- রাত আড়াইটায় বুড়িচং উপজেলার কোমাল্লা গ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে যায়।পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েঁ।পুলিশও আত্ম রক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়েঁ।খবর পেয়ে থানা থেকে পুলিশের আরেকটি টিম ঘটনাস্থলে যায়।এসময় ৩ডাকাত গুলিবিদ্ধহন। ৫পুলিশ আহত হয়।গুলিবিদ্ধ ৩ডাকাতকে কুমেক হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।পরবর্তীতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই সহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে ডিবিপুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়।পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ্য করে ডাকাতদল পিঠু হটে পালিয়ে গেছে।
 পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল,৪রাউন্ড গুলি,একটিপাইপগান,২টিছোড়াঁ,১টি ডেগার,৭টি মুখোশ,টর্চ ২টি,৩টি স্কু ডাইভার,৩টি মোবাইল, ১টি জিআইপাইপ,গুলির খোসা উদ্ধার করে।
 পুলিশের সাথেবন্দুকযুদ্ধে নিহতরা হলেন-ডাকাত অলি মিয়া(৪২),বুড়িচং উপজেলার জগতপুর এলাকার মৃত আবুল হাশেমের ছেলে,বাবুল মিয়া(৩৮)দেবিদ্বার উপজেলার চরবাকর এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে ও  এরশাদ মিয়া(২৬),ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলার গোপাল নগর এলাকার তাজুল ইসলামের ছেলে।
আহতরা হলেন-বুড়িচংয়ের ওসি আকুল চন্দ্র বিশ^াস,এসআই মো:মোয়াজ্জেম,এএসআই মহিউদ্দিন,এসআই পুষ্প বরণ চাকমা ও এক পুলিশ কনস্টেবল।
 নিহত ডাকাতদের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় ডাকাতিসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে।

  কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশের দাবি নিহত তিনজন পেশাদার ডাকাতদলের সদস্য।  রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে পৌনে ৩টার দিকে বুড়িচং উপজেলার কোমাল্লা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকুল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, কোমাল্লা গ্রামে সংঘবদ্ধ ডাকাতদল ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে তাদের কাছে খবর আসে। এর ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযানে যান তারা। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে হামলা চালায় ও গুলি ছোঁড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি চালায়। দুই পক্ষের গোলাগুলিতে ডাকাতদলের তিন সদস্য গুলিবিদ্ধ হন।

ওসি বলেন, এসময় তিনিসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হন। গোলাগুলি এক পর্যায়ে ডাকাতদলের সদস্যরা পালিয়ে যায়। পরে গুলিবিদ্ধ ডাকাতদলের তিন সদস্যকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতরা হলেন, দেবিদ্বার উপজেলার চরবাকর গ্রামের বাবুল, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার গোপালনগর গ্রামের এরশাদুল ও বুড়িচং উপজেলার জগতপুর পুর্বপাড়া এলাকার অলি মিয়া।

ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি, একটি পাইপগান, পাঁচ রাউন্ড বন্দুকের গুলি, ছয়টি কাঠের বাটযুক্ত ধারালো ছুরিসহ ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।  নিহত তিনজনের বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্র, ডাকাতি, মাদকসহ বিভিন্ন অভিযোগে থানায় পাঁচটিরও বেশি মামলা রয়েছে বলে জানান ওসি। তিনি জানান, মরদেহগুলো ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।   সংবাদ প্রকাশঃ ০৯২০১৯ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTV NEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন   CTVNEWS24  See More সিটিভি নিউজ।। =আরো বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন== 

Print Friendly, PDF & Email
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •