কালীগঞ্জে শিপন কম্পিউটারে দুঃসাহসিক চুরির, চোর গ্রেপ্তার, টাকা ও মোবাইল ফোন উদ্বার

সিটিভি নিউজ।।   মানিক ঘোষ নিজস্ব প্রতিনিধি  জানান ====
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ “ শিপন কম্পিউটারে” দুঃসাহসিক চুরির সাথে জড়িত জনি মন্ডল (২১) ও তার মা মাদক স¤্রাজ্ঞী ময়না বেগম (৪২) কে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। শনিবার (২০ জুন) দিনগত রাতে শহরের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের একটি ভাড়া বাড়ি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত জনি পিরোজপুর গ্রামের মৃত ইকবাল হোসেনের ছেলে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের বাড়ি থেকে চুরি হওয়া টাকার মধ্যে নগদ ৭৪ হাজার টাকা, ৫ টি বিভিন্ন ধরনের স্মার্ট ফোন, তালা ভাঙ্গার কাজে ব্যবহৃত লোহার রড়, একটি চাকু ও ২টি টর্চ লাইল উদ্ধার করেছে। আসামিদের রোববার দুপুরে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার এসআই শেখ সুজাত আলী জানান, গত ৮ জুন দিনগত রাতে কালীগঞ্জ শহরের মেইন বাসস্ট্যান্ডের লস্কার টাওয়ারের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত “শিপন কম্পিউটার” প্রতিষ্ঠানে ৯টি তালা ভেঙ্গে এক দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়। চোরেরা নগদ ১ লাখ ৯২ হাজার টাকা, ১৩টি বিভিন্ন ধরনের স্মার্ট ফোন চুরি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানের মালিক মাজহারুল ইসলাম শিপন ৯ জুন কালীগঞ্জ থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে একটি চুরি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর পুলিশ দোকানের সিসি ক্যামেরার রেকর্ড সংগ্রহ ও মোবাইল ট্রাকিং করে তদন্ত শুরু করে। মূলত মোবাইল ট্রাকিংয়ের সূত্র ধরে পুলিশ ২০ জুন দিনগত রাতে শহরের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের জহুরুল ইসলামের ভাড়া বাড়িতে অবস্থানের সময় জনিকে গ্রেপ্তার করে । পরে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে চুরির কথা স্বীকার করে এবং তার বাড়িতে মোবাইল ও টাকা আছে বলে জানায়। ওই রাতেই পুলিশ দ্বিতীয় দফায় জনির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার মা মাদক স¤্রাজ্ঞী ময়না বেগমের কাছ থাকা মোঅভিযানভিত্তিক নগদ টাকা উদ্ধার করে। তিনি আরো জানান, ময়নার প্রথম স্বামী মারা গেছে। সে তার দ্বিতীয় স্বামী পলাশ ম-লের সাথে নিশ্চিতপুরের ভাড়া বাড়িতে থাকে।’ তাদের আড়পাড়ায় একটি বাড়ি রয়েছে।

আসামি জনির উদ্বৃতি দিয়ে এসআই সুজাত আরো জানান, শহরের মুনসুর প্লাজার সামনের একটি কৃষ্ণচুড়া গাছ বেয়ে মুনসুর প্লাজার দ্বিতীয় তলার ছাদে উঠে। সেখান থেকে ছাদ বেয়ে তিনতলার ছাদে উঠে জনি। এরপর সে লস্কার টাওয়ার এর তিনতলার সিঁড়ি ঘরের দরজা ভেঙ্গে শিপন কম্পিউটারের দ্বিতীয় তলায় প্রবেশ করে। প্রথমে সে চাকু দিয়ে মেইন গেটের সামনে লাগানো সিসি ক্যামেরার তার কেটে দেয়। এরপর একেক করে ৯ টি তালা ভেঙ্গে দোকানে প্রবেশে করে নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন ফোন চুরি করে।
কালীগঞ্জ থানার অফিসার-ইন-চার্জ ওসি (চলতি দায়িত্ব ) মতলেবুর রহমান জানান, শিপন কম্পিউটারে দুঃসাহসিক চুরির ১১ দিনের মাথায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রকৃত চোর জনি ম-ল ও চোরাই মালামাল এবং নগদ টাকা তার মা মাদক স¤্রাজ্ঞী ময়না বেগমের হেফাজতে উদ্ধার করা হয়। এ সময় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশ রোববার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে পাঠায়।

সংবাদ প্রকাশঃ  ২১২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTV NEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=

Print Friendly, PDF & Email