নারায়ণগঞ্জে শামীম ওসমানের আলটিমেটামে অবশেষে প্রো অ্যাকটিভ হাসপাতালে করোনা ইউনিট হচ্ছে

সিটিভি নিউজ, এম আর কামাল, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি জানান : শামীম ওসমান এমপি’র ৪৮ ঘন্টার আলটিমেটামে পাল্টাতে বাধ্য হল সিদ্ধান্ত। একদিনের মাথায় সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে প্রো-অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। অতঃপর এ বেসরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে, করোনা রোগী ভর্তি নিতে। প্রস্তুত করা শুরু হয়েছে করোনা ইউনিট।
ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের সাইনবোর্ড এলাকায় অবস্থিত প্রো-অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৫০টি বেড রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে ১০টা বেড নিয়ে আইসিইউ ইউনিট। হাসপাতালটির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ বরাবরই। তবে করোনাকালে সবচেয়ে মারাত্নক অভিযোগ, এ হাপাতালে আক্রান্ত তো নয়ই, কোন রকম উপসর্গ থাকলেই রোগী ভর্তি নেয়া হয় না। সম্প্রতি এক যুবক হাসপাতালটিতে চিকিৎসা নিতে আসার পর করোনা উপসর্গ থাকায় ভর্তি নেয়নি। পরে বিনা চিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর পরীক্ষার রির্পোটে ওই যুবকের করোনা ধরা পরেনি।
নিজ জেলার চিকিৎসা ব্যবস্থার কথা বলতে গিয়ে মঙ্গলবার শামীম ওসমান গণমাধ্যমকে বলেন, সরকারী নির্দেশনা রয়েছে বেসরকারী প্রতিটা হাসপাতালকে করোনা আক্রান্ত রোগি ভর্তি করতে হবে। অথচ, এখন পর্যন্ত প্রো-অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল রোগী ভর্তি করছে না?। প্রশাসন, দায়িত্বশীল কর্মকর্তা যাদের উপর নির্দেশনা আছে, তারা কেনো কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করছের না। সে ব্যাপারে আমি যথেষ্ট সন্দিহান। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে যদি তারা করোনা রোগী ভর্তির ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ না করে, তাহলে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আমি নিজেই ওই হাসপাতালে যাবো এবং প্রয়োজন হলে ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে যা যা ব্যবস্থা নেয়ার দরকার আমি ব্যবস্থা নিবো।
এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ বলেন, আমরা করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা দিতে প্রো-অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে চিঠি দিয়েছি। কর্তৃপক্ষ মৌখিক ভাবে জানিয়েছে, আগামী সপ্তাহ থেকে করোনা রোগী ভর্তি নিবে।
অপরদিকে প্রো-অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক একেএম রায়হান জানান, এমপি শামীম ওসমান যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তা সঠিক। আমরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কয়েক দফা মিটিং করেছি। আমরা বর্তমানে স্বাস্থ্যকর্মী সঙ্কটে রয়েছি। আমরা ইতোমধ্যে করোনা আক্রান্তদের জন্য আইশোলেসন ইউনিট প্র¯ুÍত করেছি। শনিবার আমরা (হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ) একটা মিটিং করবো। আশা করি খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যেই করোনা রোগিদের চিকিৎসা সেবা দিতে পারবো।
এখন প্রশ্ন উঠেেেছ এতদিন কেন রোগিদের চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়নি। জননেতা শামীম ওসমানকে কেন আলটিমেটাম দিতে হল?। কোথা থেকে এখন এলো স্বাস্থ্য কর্মী? এর কোন জবাব মিলেনি হাসপাতাল কতৃপক্ষের কােছ থেকে। বেসরকারী এ হাসপাতালটির বিরুদ্ধে একাধিকবার মিডিয়ায় নানা অভিযোগের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি।

সংবাদ প্রকাশঃ  ১৮২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTV NEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=

Print Friendly, PDF & Email