স্বর্ণের দোকানে গহনার তৈরি করতে গিয়ে এসিড পানে শিশুর মৃত্যু

সিটিভি নিউজ।।    দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি নয়ন  সংবাদদাতা জানান == মা মোর্শেদা বেগমের সঙ্গে স্বর্ণের দোকানে গহনার তৈরি করতে গিয়ে ওই এসিড পানে মোসা. মোনতাহুল জান্নাত সাবা (৫) নামের এক শিশুর মৃত্যু স্বর্ণের দোকান মালিক গ্রেফতার ।

গ্রেফতার কৃত আসামী সাইফুল ইসলাম (৪০) পিতা ঃ সবুজার রহমান গ্রামঃ রামপুর উপজেলা ঃ নবাবগঞ্জ ।

বুধবার বেলা ১২টার দিকে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা শহরের সোমা জুয়েলার্স নামের স্বর্ণের দোকানে এ ঘটনা ঘটে। শিশু মোনতাহুল জান্নাত সাবা উপজেলার বিনোদনগর নন্দনপুর গ্রামের শাহাজুল ইসলামের মেয়ে।

শিশুটির মা মোর্শেদা বেগম দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি নয়ন কে জানান , সকালে উপজেলা শহরের সোমা জুয়েলার্স নামের একটি স্বর্ণের দোকানে মেয়ে মোনতাহুল জান্নাত সাবা কে নিয়ে গহনা তৈরি করতে যান । সেখানে শিশুটির ক্ষুধা পেলে তিনি বিস্কুট খেতে দেন পরে পানি খেতে চাইলে, এ সময় ওই দোকানের মালিক সাইফুল ইসলাম গ্লাসে করে পানির বদলে স্বর্ণ পরিষ্কার করা এসিড খেতে দেয়। গ্লাসের এসিড খেয়ে শিশুটি অজ্ঞান হয়ে পড়লে দ্রুত তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পর শিশুটি মারা যায়।

নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) শাহাজাহান আলী দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি নয়ন কে জানান ,‘অসুস্থ শিশুটিকে নিয়ে তার মা মোর্শেদা বেগম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছিল। প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার আগেই শিশুটি মারা গেছে। শিশুটির মায়ের বর্ণনা অনুযায়ী পানির পরিবর্তে স্বর্ণের দোকানের এসিড পানে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে’।

নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অশোক কুমার চৌহান দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি নয়ন কে জানান ,‘স্বর্ণের দোকানের এসিড পান করে শিশু মৃত্যের ঘটনায় দোকানের মালিক সাইফুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। শিশুটির লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে’ । সোমা জুয়েলার্সের মালিক সাইফুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। শিশুটির পরিবার মামলা করলে ঘটনা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে’।

সংবাদ প্রকাশঃ  ০৩২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTV NEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=

Print Friendly, PDF & Email