সেবিকারাই রোগিদের খুব কাছ থেকে মা’য়ের স্নেহে আদর- ভালোবাসায় সেবা দিয়ে সুস্থ্য করে তুলেন

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।।   এবিএম আতিকুর রহমান বাশার ঃ সংবাদদাতা জানান ====
“স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় শক্তিশালী নার্স নেতৃত্বের বিকল্প নেই”-এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দেবীদ্বারে যথাযোগ্য মর্যাদায় ‘আন্তর্জাতিক নার্স দিবস’ পালিত হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী, কেককাটা, আলোচনা সভা ও রোগীদের বিশেষ পরিচর্যার আয়োজন করা হয়।
বৃহস্পতিবার দুপুরে দেবীদ্বার উপজেলা নার্স এসোসিয়েশন’র উদ্যোগে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রশিক্ষণ ভবনে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ এনামুল হক। সিনিয়র নার্স (সুপারভাইজর) জিনাত আরা বেগম’র সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মঞ্জুর রহমান, সাংবাদিক এবিএম আতিকুর রহমান বাশার, ডাঃ তামান্না আক্তার সোলাইমান, ডাঃ মোঃ শরিফুল আলম সাকিল, ডাঃ মোঃ নাজমুল হাসান, ডাঃ মোঃ মোশাররফ হোসেন, সিনিয়র নার্স নাদিয়া রহমান, ফাতেমাতুজজোহরা, আফসানা মিমি প্রমূখ।
আলোচকরা বলেন, শিশু ভূমিষ্টের সময় নার্সই প্রথম সন্তানকে কোলে নেন, পরিচর্যা করেন। আর জীবনের শেষ মুহুর্তে রোগি যখন অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে আসেন তখন সেই সেবিকারাই খুব কাছ থেকে মা’য়ের আদর, ¯েœহ, ভালোবাসায় সেবা দিয়ে সুস্থ্য করে তুলেন। এমনকি কখনো কখনো জীবনের শেষ মুহুর্তে শেষ নিঃশ^াসটা ত্যাগ করে জীবনের পরিসমাপ্তি ঘটে নার্সদের হাতে বা কোলে থেকেই। তাই নার্সদের পদ-পদবী পরিবর্তন করে মা’সেবিকা’ দিবস’ হিসেবে উন্নীত করা হলে ‘নার্সগন আরো বেশী সম্মানীত ও স¦ার্থকতা পেত।
চিকিৎসকরা আরো বলেন, আমরা রোগির ব্যবস্থাপত্র দেয়ার পর তা বাস্তবায়নে রোগিকে সুস্থ্য করে তোলা পর্যন্ত যে গুরুত্বপূর্ণ সেবাদান ও পরিচর্যার কাজটি করেন যারা তারা হলেন নার্স বা সেবিকা। সম্প্রতি বৈশি^ক করোনা মহামারীতে আমাদের (চিকিৎসক) চেয়েও নার্সরা ছিলেন সম্মূখ যোদ্ধা। যাদের বাদ দিয়ে আজকের এ করোনা মুক্ত বিশে^র কলপনা করা যায়না।
ইতালির অভিজাত পরিবারে জন্ম নেয়া, আধুনিক নার্সিংয়ের প্রতিষ্ঠাতা মহিয়ষী নারী বিশিষ্ট লেখিকা ও পরিসংখ্যানবীদ ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেলের জন্মদিন ১২ মে (১৯২০)কে সেবিকাদের স্মরনে উৎস্বর্গ করা হয়েছে। ১৯৭৪ সাল থেকে তাঁর জন্মদিনটি ‘ইন্টারন্যাশনাল নার্সেস ডে’ বা বিশ^ সেবিকা দিবস হিসাবে পালিত হয়ে আসছে গোটা বিশ্বে। ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেলের সেবাদানই আজ বিশে^র ইতিহাসে আধুনিক নার্সিং’র মান বাড়িয়েছে।

সংবাদ প্রকাশঃ  ১২-০-২০২২ইং সিটিভি নিউজ এর  (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like  See More =আরো বিস্তারিত জানতে ছবিতে/লিংকে ক্লিক করুন=  

Print Friendly, PDF & Email