লাভের ‘হার্ভেস্টার’ এখন ক্ষতির মেসিন!

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

কুমিল্লার দেবিদ্বারে লাভের আশায় এক কৃষকের ক্রয় করা ‘ওয়ার্ল্ড কম্বাইন্ড হার্ভেষ্টার ধানকাটার মেসিনটি এখন গলার কাটা।

সিটিভি নিউজ।।      ফয়জুল ইসলাম ফয়সাল, মুরাদনগর থেকে   সংবাদদাতা জানান === :  লাভের আশায়  কেনা ‘ওয়ার্ল্ড কম্বাইন্ড হার্ভেস্টার ধানকাটার মেসিনটি প্রান্তিক কৃষক খোরশেদ আলমের ’ গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে।     কুমিল্লার দেবিদ্বারের প্রান্তিক কৃষক খোরশেদ আলম জানান .  কিছুদিন না যেতেই মেসিনের ইঞ্জিন, চেসিজ, চাকা, ঢুলি, ব্লেড, বটম, ফিঙ্গার বেয়ারিং ও ক্যাম্পপ্লাস বেয়ারিংসহ বিভিন্ন পার্টস নষ্ট হয়ে গেছে। যেখানে মেসিনটি দিয়ে আয় করার কথা, সেখানে মেসিনটি মেরামতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা। সময়মতো পরিশোধ করতে হচ্ছে কিস্তি।

চলতি ধানকাটা মৌসুমের পূর্বে মেসিনটি মেরামত করে দেয়ার কথা বললেও ক্রেতার সাথে বিক্রয় কোম্পানীর চুক্তিনামার কোন শর্তই মানা হচ্ছে না, ওয়ারেন্টির গ্যারান্টি কার্যকর না করেই কোম্পানী কিস্তির টাকা পরিশোধের তাগাদা দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন ওই কৃষক। শুরুতে বিভিন্ন ত্রুটি সমাধানে কোম্পানীর পক্ষ থেকে মিকানিক্স ছাড়া যন্ত্রাংশ বা অন্য কোন সহযোগিতা দেয়নি। চলতি মৌসুমেও ইঞ্জিন এবং পাম্পের সমস্যা ওয়ারেন্টি অনুযায়ী কোম্পানী মেরামত করে না দিলে তাকে পথে বসতে হবে বলেও জানান তিনি।

কোম্পানীর শর্তানুযায়ী ৬০০ ঘন্টার মধ্যে সকল প্রকার গ্যারান্টির ওয়ারেন্টি কার্যকর করা হবে। অথচ ৪০০ ঘন্টা না যেতেই ত্রুটিজনীত কারনে বিকল হয়ে পড়ে থাকা হার্ভেস্টার মেসিনের কোন দায়ভার কোম্পানী নিতে চাচ্ছে না। প্রথম দিনই ট্রাক থেকে হার্ভেষ্টার মেসিনটি আনলোড করার সময় পড়ে গিয়ে পুরো মেসিনটির সেইভ নষ্ট হয়ে যায়। সেই থেকে মেসিনে ব্লেড সংযোগ করলেও তা বাঙ্গার কারনে টিকেনা, এ বিষয়ে কোম্পানীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, সমস্যা হলে আমরা দেখব, কিন্তু পরবর্তীতে ওই আশ^াসের আর কোন সহযোগীতা পাইনি বলেও জানায় ওই কৃষক।

কৃষক খোরশেদ আলম বলেন, কৃষি মন্ত্রনালয় থেকে কৃষকদের উন্নয়নে ভর্তুকী প্রদানসহ ‘কম্বাইন হার্ভেস্টার মেসিন’ প্রদান করে। হারভেষ্টারগুলো কৃষি বিভাগের অনুমোদিত এসিআই, করোনা এবং মেটাল কোম্পানীর ডিলারদের কাছ থেকে ক্রয় করতে হয়। আমরা ভালো কোম্পানী চিনিনা, তাই ওই নিয়মে আমি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার পরামর্শে এসিআই, করোনা বাদ দিয়ে মেটাল কোম্পানীর একটি ‘কম্বাইন হার্ভেস্টার মেসিন’ ২০ লক্ষ টাকায় ক্রয় করি। এর মধ্যে ১৪ লক্ষ টাকা সরকারের কৃষি মন্ত্রনালয় ভর্তুকী দিয়েছে এবং বাকী ৬ লক্ষ টাকা আমাকে পরিশোধ করতে হবে। অল্পদিনেই মেসিনটির চাকা ফেটে গেছে, ব্লেডগুলো অটমেটিক ভেঙ্গে পড়ছে। এছাড়াও বডির ঢাকনাগুলোও কোন ধরনের প্রেসার ছাড়াই যেখানে সেখানে খসে খসে পড়ছে, রং তুলিতে নতুন দেখা গেলেও এ রিকন্ডিশন গাড়িটির কোন ধরনের টেম্পার নেই। এখন পুরো গাড়িটাই বদলাতে হবে।

ওই একই কোম্পানীর ‘ওয়ার্ল্ড কম্বাইন্ড হার্ভেস্টার মেসিন’ ক্রয় করা অপর কৃৃষক আরশাদ হোসেন বলেন, দেবিদ্বারে মেটাল কোম্পানী ২টি কম্বাইন্ড হারভেস্টর মেসিন এর একটি আমি কিনেছি। কম্বাইন্ড হার্ভেস্টরের সুবিধা অনেক, সরকার থেকে তিন ভাগের দুই ভাগেরও বেশী টাকা ভর্তুকী পাওয়া, একসাথে ধান কাটা, ধান মাড়াই এবং বস্তাবন্দি করা যায়। এছাড়াও শ্রমিকের অভাব পুরণ, অল্প সময়ে, অর্ধেক খরচে ধান কাটা যায়। আমি নিজেও মেটার কোম্পানীর মেসিন নিয়ে বিপাকে আছি। গত এক বছরে নিরাপদে একদিনের জন্যও মেসিনটি চালাতে পারিনি। প্রতি দিনই মেসিন চালু করার জন্য কোম্পানীর মেকানিক্স ডাকতে হয়েছে। তবে বিভিন্ন সময়ে মেরামতে প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশের প্রায় সাড়ে ৪ লক্ষ টাকা কোম্পানী ভর্তুকি দিয়েছে। ভালো কোম্পানীর ভালো মেসিন হলে কৃষক অল্পদিনেই মূল্য উঠিয়ে নিতে পারবে।

চট্রগ্রাম বিভাগীয় জেনারেল ম্যানেজার সঞ্জয় কুমার দাস বলেন, বিক্রয় কোম্পানীর সাথে ক্রেতার গ্যারান্টি ওয়ারেন্টির শর্তানুযায়ী চুক্তি বাস্তবায়নে যদি কৃষক কোন সেবা বঞ্চিত হন, তাহলে সংশ্লিষ্ট কৃষক লিখিত আবেদন করতে পারেন, আমরা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেব। তাছাড়া কৃষক লসে পড়ার কারণ নেই, এক ঘন্টায় এক একর জমির ধান কাটাতে কৃষক (হারভেষ্টার মালিক) পাবে ৫ হাজার টাকা। দৈনিক ১০/১২ ঘন্টা ধান কাটতে পারবে। যারা ভর্তুকি ছাড়া ব্যাক্তিগত ভাবে কিনে নেন, তাদের চেয়ে বেশী সমস্যা দেখা যায় ভর্তুকীসহ কিস্তিতে কেনা কৃষকদের, এ বিষয়টাও খতিয়ে দেখা দরকার ।

 দেবিদ্বার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুর রৌফ বলেন, কৃষি মন্ত্রনালয় থেকে কৃষকদের উন্নয়নে ভর্তুকি প্রদানসহ ‘কম্বাইন হার্ভেস্টার মেসিন’ প্রদান করে। হার্ভেষ্টারগুলো কৃষি বিভাগের অনুমোদিত এসিআই, করোনা এবং মেটাল বা অন্য কোন কোম্পানীর ডিলারদের কাছ থেকে ক্রয় করতে হয়। ক্রেতা তার পছন্দের মেসিন যে কোম্পানী থেকে ক্রয় করবেন, সে কোম্পানীর সাথে তার চুক্তিপত্র হবে। আমরা শুধু ভর্তুকিটাই প্রদান করে থাকি। তারপরও কৃষক মেসিন নিয়ে সমস্যায় পড়লে আমরা বিক্রয় প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ করতে পারি।

সংবাদ প্রকাশঃ  ৩০২০২১ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email