মনোহরগঞ্জে বেপরোয়া চোর চক্র আশংকাজনকহারে বাড়ছে চুরি

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।।      ইমরান হোসেন সোহাগ, মনোহরগঞ্জ (কুমিল্লা) প্রতিনিধি ঃ=======
কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে বেড়েছে চোরের উপদ্রব। এখানে প্রায়ই ঘটছে চুরির ঘটনা। এতে আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়েছে এলাকাবাসী। ১৮ সেপ্টেম্বর রবিবার দিবাগত রাতে উপজেলার লৎসর গ্রামে দিদার ষ্টোরে চোর ঢুকে তার দোকানে মুদি, ষ্টেশনারী ও একটি সাউন্ড সিস্টেমসহ সব মালামাল নিয়ে যায়। এতে তিনি প্রায় ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিসাধিত হওয়ার কথা জানান। এক মাসের ব্যবধানে ২য় দফায় আবার দোকান চুরি হওয়ায় সর্বশান্ত এ দোকান মালিক জানান, এর আগে গত ২০ আগষ্ট রাতে তার দোকানে চুরি হয়। ২১ আগষ্ট তিনি দোকান চুরির বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগও করেন। মসজিদ মাদ্রাসার আসবাবপত্র চুরিসহ সংঘঠিত কয়েকটি ঘটনায় ধরা ছোঁয়ার বাহিরে থাকা সংঘবদ্ধ চোরের দল বেপরোয়া হয়ে উঠেছে এ এলাকায়। গত ৩ মাসে এ নিয়ে আশপাশের এলাকায় অন্ততঃ ৩০টি চুরি সংগঠিত হওয়ার কথা জানান এলাকাবাসী। সম্প্রতি উপজেলার বেতিয়াপাড়া চৌধুরীবাড়ী মসজিদের তালা ভেঙ্গে ১টি মোটর পাম্প, ২টি ফ্যান, ও মাদ্রাসার ১টি মোটর পাম্প, ২টি ফ্যান, এ এলাকার জয়নাল আবেদিনের ১টি পানির পাম্প, সালেপুরের আবুল কালাম বাচ্চুর ঘরের তালা ভেঙ্গে ১টি পানির পাম্প ও ২টি ফ্যান, নারায়নপুর থেকে ২টি অটোরিক্সা, কাশিপুর বাজারে আলমগীর এর চা দোকান থেকে ২টি ফ্যান, সেকান্দর এর চা দোকান থেকে ২টি ফ্যান, আবুল কালাম এর গোডাউন থেকে ১টি বৈদ্যুতিক মটর, হাবিব এর দোকান থেকে সিলিন্ডারসহ গ্যাস চুলা, সালেপুরের দুলাল এর পানির মেশিন, লৎসর এর কামাল হোসেন এর ২টি গরু, সোলতানিয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসার ২টি টিউবওয়েল, ১টি ফ্যান, লৎসর বাইতুল জান্নাত জামে মসজিদের ২টি ফ্যান, বেপারী বাড়ী জামে মসজিদের ১টি টিউবওয়েলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সামনে থাকা প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম ও আসবাবপত্র চুরির কথা জানান ভূক্তভোগীরা। বিদ্যুতের লোডশেডিং এ রাতে চোরের উপদ্রব বাড়ার কথা জানান এলাকাবাসী। এ বিষয়ে মনোহরগঞ্জ থানা পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) সফিউল আলম এর সাথে কথা হলে তিনি অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের কথা জানান।

সংবাদ প্রকাশঃ  ২০-০-২০২২ইং সিটিভি নিউজ এর  (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like  See More =আরো বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন=  

Print Friendly, PDF & Email