বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ যুবলীগ নেতার পিতার বিরুদ্ধে

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ, এম আর কামাল, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি জানান : নারায়ণগঞ্জ শহরের ডাকবাংলা সংলগ্ন রূপায়ন টাওয়ারের সামনের রাস্তায়  সিরাজুল নামে এক বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়াগেছে।   মাত্র ৩৬শত টাকা বিদ্যুৎ বিল পাওনার দাবীতে বাড়িয়ালা শাহজাহান ও তার বাড়ির দারোয়ান বৃদ্ধ সিরাজুলকে বৃহস্পতিবার (১১ জুন) দুপুরে রাস্তায় ফেলে বেদরক মারধর করে। পরে পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে বৃদ্ধার হাজী ব্রাদার্স সড়কের ভাড়া বাসায় পৌছে দেয়। শুক্রবার (১২ জুন) বিকাল সোয়া ৪টায় নিজ বাসায় মারা যান।
নিহত সিরাজুলের মেয়ের জামাতা গিয়াসউদ্দিন জানান, ৭/৮ বছর পূর্বে তার শ্বশুর প্রভাবশালী যুবলীগ নেতা ফয়েজউল্লাহ ফয়েজের পিতা শাহজাহানের বাড়িতে ভাড়া থেকেছেন। তিনি সেখান থেকে চলে আসার পর বাড়িয়ালা তার কাছে ৩ হাজার ৬শত টাকা বিদ্যুৎ বিলা পাওনা রয়েছে বলে দাবী করে। পরবর্তিতে ২ দফায় তাকে বিদ্যুৎ বিল বাবদ টাকা পরিশোধ করেন। কিন্তু এরপরও তিনি আরও ৩৬শত টাকা পাওনা রয়েছে বলে দাবী করেন। বৃদ্ধ সিরাজুল বিদুৎ বিলের দাবীকৃত টাকা পরিশোধ করা হয়েছে বলে আর সে টাকা দিতে রাজি হননি।
তিনি আরো জানান, বিদ্যুৎ বিলম্বে দেয়ায় বাড়ীওয়ালা শাহজাহানের অতিরিক্ত ৩৬শত টাকা জরিমান দিতে হয়েছে দাবী করেন। বৃহস্পতিবার যোহরের নামাজ পড়ে তিনি পাশের একটি দোকানে যান। সেখান থেকে প্রথমে শাহজাহানের বাড়ির দারোয়ান তাকে আটক করেন এবং মোবাইলে শাহজাহানকে খবর দেন। শাহজাহান বাড়ির ভেতর থেকে একটি বাশ নিয়ে বেরিয়ে এসেই কিছু বুঝে উঠার আগে এলোপাতারী সিরাজুলকে মারধর শুরু করেন। দারোয়ান ও শাহজাহনের প্রহারে তিনি জ্ঞান হারালে তাকে রাস্তায় ফেলে রেখে সাবেক বাড়িওয়ালা শাহজাহান ও তার বাড়ির দারোয়ান বাড়িতে চলে যান। এসময় এলাকাবাসীরা তাকে উদ্ধার করে হাজী ব্রাদার্স সড়কের সুজনের বাড়ির দ্বিতীয় তলায় নিয়ে যান।
পরে বাড়ীয়ালা শাহজাহানে মেয়ে এডভোকেট মুক্তা ও মুন্নি মরধরের পরপরই সিরাজুলের বাড়িতে আসেন। তারা বিষয়টি নিয়ে আইনগত কোন ব্যবস্থা না নেয়ার কথা বলেন। চিকিৎসার সকল খরচ তারা বহন করবেন এমন আশ্বাস দেন। মামলা করে কোন লাভ হবেনা বলেও হুমকী দিয়ে আসেন।
এলাকাবাসী জানান, বাড়িওয়ালা শাহজাহান যুবলীগ নেতা শাহ ফয়েজউল্লাহ ফয়েজের পিতা।
এ ব্যাপারে ফতুল্লা থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে। তদন্ত করা হচ্ছে। যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরাধীকে কোন ছাড় দেয়া হবে না। মামলার  প্রস্তুতি  চলছে।

সংবাদ প্রকাশঃ  ১২২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTV NEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন= 

Print Friendly, PDF & Email