নাসিক নির্বাচন : ভোটাররা নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে যাবেন দাগি আসামিদের গ্রেফতার করা হচ্ছে : ডিসি

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ, এম আর কামাল, নারায়ণগঞ্জ থেকে জানান : নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারের অভিযোগ প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে জেলা প্রশাসক বলেন, আমরা আমাদের স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাছ থেকে লিখিত, ফোনে বা অন্য কোনো মাধ্যমে কোনো অভিযোগ পাইনি। আমরা আমাদের ইলেকশনের রুটিন ওয়ার্ক করছি। দাগি আসামিদেও গ্রেফতার করা হচ্ছে ও তাদের বিরুদ্ধেই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।
শনিবার (১৫ জানুয়ারী) নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি।
জেলা প্রশাসক বলেন, আমরা ভোটের সব সরঞ্জাম পৌঁছে দিয়েছি। আমাদের ম্যাজিস্ট্রেটরা কাজ করছে। আমাদের আরও ত্রিশজন ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করবে। আমাদের পুলিশের ৭৫টি টিম ও র‌্যাবের ৬৫টি টিম মাঠে থাকবে। বিজিবিও আমাদের সাথে কাজ করবে। কেন্দ্রগুলোতে ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, বিজিবি কাজ করছে। আমাদের পুলিশ সুপার ও র‌্যাব কর্মকর্তারা আছেন। আমাদের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত আছে। নির্বাচনের জন্য যারা থ্রেট হতে পারে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আশা করি, সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটাররা ভোট দিতে পারবে।
সিসি ক্যামেরা খুলে ফেলার অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের সকল কেন্দ্রে সিটি ক্যামেরা নেই। কিছু কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা আছে। সেগুলো খুলে ফেলার মতো কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। আমরা সকলকে আশ্বস্ত করতে চাই আইশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে। আমাদের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত আছে। ইলেকশন শান্তিপূর্ণভাবে হবে।
বহিরাগতদের প্রসঙ্গে ডিসি বলেন, নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের কথা জানি না, সেটা সরকারি প্রতিষ্ঠান নয়। এছাড়া কোনো সরকারি বাসস্থানে প্রশাসনের লোক ছাড়া কাউকে স্থান দেওয়া হয়নি। আমরা সকল সেন্টারকে গুরুত্ব সহকারে দেখছি। সকলে নির্বিঘ্নে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট দিতে পারবে।
তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের করোনা প্রটোকল মেনে ভোট দিতে হবে। সেন্টারে সুরক্ষাসামগ্রী থাকবে। আমরা সে ব্যাপারে সচেতন আছি আমরা প্রার্থীদের প্রতি আহ্বান জানাব, সকলকে সচেতন করবেন। এতদিন সকলে অত্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে প্রচারণা চালিয়েছেন। আশাকরি, আগামীকালও এমন শান্তিপূর্ণ পরিবেশই আপনারা বজায় রাখবে।
জেলা প্রশাসক বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত ২০০ মামলা করেছি। একজনকে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। লক্ষাধিক টাকা জরিমানা করেছি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের জন্য।

সংবাদ প্রকাশঃ  ১৫-০১-২০২২ইং । (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like  See More =আরো বিস্তারিত জানতে ছবিতে/লিংকে ক্লিক করুন=  

Print Friendly, PDF & Email