কুমিল্লায় জনপ্রতিনিধির স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ভিজিএফ এর চাল বিতরণের অভিযোগ

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।।     এইচ এম মহিউদ্দিন, কুমিল্লা সংবাদদাতা জানান ====জনপ্রতিনিধির স্বাক্ষর জাল করে স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে ভিজিএফ এর চাল বিতরণের অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে কুমিল্লা সদর উপজেলার সাবেক ইউপি সদস্য আবদুল হান্নান জাহাঙ্গীরের  বিরুদ্ধে। তিনি বর্তমান মেম্বার জামাল হোসেনের সীল ও স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ইউনিয়নের বিভিন্ন কর্মকান্ড চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলার আমড়াতলী ইউনিয়নে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে  প্রধানমন্ত্রীর উপহার দুস্থ্য ও অসহায়দের চাল বিতরণের অনিয়ম চিত্রে দেখাযায়, সাবেক মেম্বার তার নির্বাচনে বরাদ্দ পাওয়া সিলিং ফ্যান প্রতীক ব্যবহার করে ও বর্তমান মেম্বার জামাল হোসেনের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে আত্মীয় স্বজনদের মাঝে বিজিএফ এর চাল বিতরণ করছেন।

বিতরণ কাজে সহযোগিতা করছেন দুতিয়ারা গ্রামের সাজ্জাদ হোসেন, কুদ্দুস মিয়া ও হিরন সরকার। তারা জানায় চেয়ারম্যানের নির্দেশে তার চাল বিতরণ করছেন। তবে সংবাদ সংগ্রহের খবর পেয়ে কৌশলে পালিয়ে যান ঘটনার সাথে জড়িত সাবেক মেম্বার আবদু হান্নান জাহাঙ্গীর।

এবিষয় সুবিধাভোগীরা জানান, জাহাঙ্গীর মেম্বার তার নিজের প্রতীক দেয়া সিলিং ফ্যান দিয়ে নিজের নাম স্বাক্ষর করে তাদেরকে বলেন, যাকে ভোট দিয়েছ, সে কি তোমাদের চাল দিচ্ছে ? চাল দিচ্ছি আমি। এই দেখ সিলিং ফ্যান মার্কা আমার টোকেন, এটা নিয়ে স্কুলে গেলে চাল দিয়ে দিবে।

স্থানীয়রা জানান, জামাল মেম্বার নির্বাচিত হলেও তাকে ইউনিয়ন অফিসে কোন বাজেট বা উন্নয়ন কাজে ঢাকা হয় না। সাবেক মেম্বার আবদুল হান্নান জাহাঙ্গীরের সাথে চেয়ারম্যানের সু সম্পর্ক তাই তাকে দিয়েই কাজ করাচেছ চেয়ারম্যান।

এবিষয় চেয়ারম্যান মুঠোফোনে জানান, সরকারের কাজ যেমনে চালন যায় এমনেইতো চালতে হইবো। মেম্বারের সাথে কি হইছে, সেটা বিষয় না, বন্টন ঠিক আছে কি না সেটাই বিষয়। আমার ইউনিয়নে যথেষ্ট পরিমান তদারকি করার লোক আছে বলে ফোনে কেটে দেন।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকিয়া আরফিন জানান, ভোক্তভোগীরা কেহ লিখিত অভিযোগ দিলে সেটা নিয়ে আমরা ব্যবস্থা নিব। কেহ নিজের নির্বাচনী প্রতীক ব্যবহার করে কোন কাজ করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সংবাদ প্রকাশঃ  ২৮-০-২০২২ইং সিটিভি নিউজ এর  (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like  See More =আরো বিস্তারিত জানতে ছবিতে/লিংকে ক্লিক করুন=  

Print Friendly, PDF & Email