কুমিল্লায় ছত্রখিলে মাদক বিক্রিতে বাধা দেয়ায় রং মিস্ত্রী কে ছুরিকাঘাত

সিটিভি নিউজ।।    কুমিল্লা সংবাদদাতা ।। জানান —
কুমিল্লা শহরতলীর ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের ছত্রখিল এলাকায় মাদক বিক্রিতে বাধা দেয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় দুজন রক্তাক্ত জখম হয়েছে। আহত মোঃ রুবেল চৌধুরী ও হাসনা বেগম কে কুমিল্লা জেনারেল ও মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনার বিচারের দাবীতে ৪জনকে আসামী করে কোতয়ালী থানায় গত ২৫ মে মামলা হয়েছে। থানায় মামলা হলেও পুলিশ এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। ফলে সন্ত্রাসী হামলাকারীরা এলাকায় প্রকাশে ঘুরে বেড়িয়ে মামলা তুলে নেয়ার জন্যে বাদী পক্ষকে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়াগেছে। এব্যাপারে কোতয়ালী থানায় গত ৭ জুন একটি জিডি করা হয়েছে। থানায় দায়ের করা এজহারের বিবরনে বাদী মোঃ সোহেল চৌধুরী জানান, জখমী মোঃ রুবেল চৌধুরী আমার আপন ছোট ভাই। সে পেশায় একজন রং মিস্ত্রী। বর্ণিত ৩নং বিবাদী সবুজ আমাদের পাশাপাশি ঘরের বাসিন্দা এবং অপর বিবাদীরা আমাদের পাশের এলাকার বাসিন্দা। বিবাদীরা এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবী। বিবাদীরা প্রায়ই আমাদের বাড়ির সামনে এসে আড্ডা দিত এবং মাদক সেবন করত। আমরা একাধিকবার বিবাদীদের নিষেধ করলেও বিবাদীরা আমাদের কোন কথা শুনে নাই। উপরন্তু আমরা কেন বিবাদীদেরকে আমাদের বাড়ির সামনে আড্ডা দিতে বারণ করছি এই অজুহাতে বিবাদীরা আমাদের সময় সুযোগমতো পাইলে দেখিয়া লইবে মর্মে হুমকি প্রদান করত। এমতাবস্থায়, বর্ণিত ঘটনার তারিখ ও সময়ে অর্থাৎ ১৫/০৫/২০২০ইং তারিখ বিকাল ০৪:৪৫ ঘটিকায় আমি বাড়ির পাশের্^ মসজিদে আসরের নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে অবস্থানকালে আমার মেয়ে এ্যামি আক্তার আমাকে মোবাইল ফোনে কান্নারত অবস্থায় জানায় যে, উপরোক্ত বিবাদীরা আমাদের বাড়িতে হামলা করেছে, আমার ভাই রুবেলকে কোপাইতেছে। তাৎক্ষণিক আমি দৌড়াইয়া বাড়িতে যাইয়া দেখতে পাই যে, আমার ভাই রুবেল রক্তাক্ত অবস্থায় উঠানে পরেআছে। ৪নং সাক্ষী আমার মা হাসনা বেগমের বাম হাত থেকে রক্ত ঝরতেছে ও আমার মেয়ে কান্নাকাটি করতেছে। তাৎক্ষণিত আমি মূমুর্ষ অবস্থায় আমার ভাইকে এবং রক্তাক্ত জখম অবস্থায় আমার মাতা হাসনা বেগমকে উপরোক্ত সাক্ষী ও আশপাশের লোকজনদের সহায়তায় প্রথমে কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালে এবং পরবর্তীতে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়া যাই। ঘটনার বিষয়ে জখমী ভাই রুবেল, মা হাসনা বেগম এবং মেয়ে এ্যামি জানায়, উপরোক্ত বিবাদীরা পূর্বাক্রোশে ও পরিকল্পিতভাবে ১৫/০৫/২০২০ইং তারিখ বিকাল ০৪:৪৫ ঘটিকায় বেআইনী জনতাবদ্ধে হাতে ধারালো ছুরি, রামদা, ছেনি, লাঠিসোঠা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়া আমাদের বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে আমাদের বাড়ির উঠানে থাকা আমার ভাই জখমী রুবেলকে পাইয়া ১নং বিবাদী সাগর হত্যার উদ্দেশ্যে তাহার হাতে থাকা ধারালো ছুরি দিয়া আমার ভাইয়ের পেটের ডান পাশে ঘাই মেরে গুরতর কাটা রক্তাক্ত জখম করে। এতে আমার ভাইয়ের পেটের নাঁড়িভূড়ি বাহির হইয়া যায়। আমার ভাইয়ের মৃত্যু নিশ্চিত করিতে ২নং বিবাদী মারুফ তাহার হাতে থাকা ধারালো রামদা দিয়া হত্যার উদ্দেশ্যে ভাইয়ের মাথা লক্ষ্য করিয়া কোপ মারিয়া ভাইয়ের মাথার পিছনের ডান ও বাম পাশের্^ মারাত্মক রক্তাক্ত গুরুতর কাটা রক্তাক্ত জখম করে। ৩নং বিবাদী সবুজ তাহার হাতে থাকা ধারালো ছেনি দিয়া হত্যার উদ্দেশ্যে আমার ভাইয়ের পিঠে কোপা মারিয়া মারাত্মক গুরুতর কাটা রক্তাক্ত জখম করে। ৪নং বিবাদী সকু একই উদ্দেশ্যে তাহার হাতে থাকা ধারালো ছেনি দিয়া কোপ মারিয়া আমার ভাইয়ের ডান বাহুতে গুরুতর কাটা রক্তাক্ত জখম করে। অজ্ঞাতনামা বিবাদীরা এলোপাথারি কিল, ঘুষি ও লাথি মারিয়া এবং লাঠিসোঠা দিয়া পিটাইয়া ভাইয়ের শরীরে নীলা ফুলা জখম করে। একপর্যায়ে ৪নং সাক্ষী আমার মাতা হাসনা বেগম বিবাদীদের কবল হইতে ভাই রুবেলকে রক্ষা করার জন্য আগাইয়া গেলে বিবাদীরা তাহাকে এলোপাথারি কিল, ঘুষি মারিয়া তাহার শরীরে নীলা ফুলা জখম করে। ১নং বিবাদী সাগর তাহার হাতে থাকা ধারালো ছুরি দিয়া হত্যার উদ্দেশ্যে আমার মায়ের পেটে ঘাই মারিলে আমার মা তাহা হাত দিয়া ফিরাইলে আমার মায়ের বাম হাতের আঙ্গুলের ফাঁকে গুরুতর কাটা রক্তাক্ত জখম হয়। বিবাদীরা আমার মায়ের পরনের কাপড় চোপড় টানাহেঁচড়া করিয়া শ্লীলতাহানী করার চেষ্টা করে। এই সুযোগে ২নং বিবাদী মারুফ আমার মায়ের গলায় থাকা ১ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন যার মূল্য অনুমান-৬০,০০০/- টাকা নিয়া যায়। একপর্যায়ে আশপাশের লোকজন শোর-চিৎকার শুনিয়া আগাইয়া আসিতে দেখিয়া বিবাদীরা দৌড়াইয়া পালাইয়া যায়। আমার ভাই আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎধীন আছে। বিবাদীরা এলাকায় আমাদের এই বলিয়া হুমকি ধমকি প্রদান করিতেছে যে, উক্ত বিষয়ে বিবাদীদের বিরুদ্ধে এলাকায় কোন শালিস দরবার বা থানায় মামলা-মোকদ্দমা করিলে আমাদের সময় সুযোগমতো পাইলে জানে মেরে ফেলবে।  সংবাদ প্রকাশঃ  ৯২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTV NEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন।  CTVNEWS24  See More সিটিভি নিউজ।। =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=

Print Friendly, PDF & Email