কুমিল্লায় আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অপরাধে দুইজন গ্রেফতার

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।। প্রেস বিজ্ঘপ্তি।।    র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-২ কর্তৃক কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানাধীন অভয় আশ্রম এলাকা থেকে প্রতারণামূলকভাবে ব্যক্তিগত মোবাইলের আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অপরাধে দুইজন গ্রেফতার। কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম থানার হাজারী পাড়া গ্রামের জনৈক আঃ খালেক (ছদ্মনাম)(৩২) এর পিতা গত ১৭/০৭/২০২২ইং তারিখে দুপুর আনুমানিক ১২:০০ ঘটিকার সময় শারীরিকভাবে গুরুতর অসুস্থ হলে তার পিতাকে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা প্রাইভেট হাসপাতাল (কুমিল্লা টাওয়ার) এ ভর্তি করেন। দুপুর আনুমানিক ০৩:০০ ঘটিকার সময় তার বাবার অসুস্থতার বিষয় আত্মীয়-স্বজনকে মোবাইলের মাধ্যমে জানানোর জন্য মোবাইল খুঁজলে বুঝতে পারে তার মোবাইল ফোনটি কোথাও হারিয়ে গেছে। পরবর্তীতে, ১৮/০৭/২০২২ ইং তারিখ বিকাল আনুমানিক ০৪:০০ ঘটিকার সময় তার ব্যক্তিগত মোবাইল ০১৮ঢঢঢঢঢঢঢঢ তে ০১৮ঢঢঢঢঢঢঢঢ নম্বর থেকে কল করে অজ্ঞাতনামা পরিচয়ে একজন বলে যে, ‘‘আপনার ব্যক্তিগত মোবাইলটি আমাদের কাছে আছে। আপনার মোবাইলে আপনার ব্যক্তিগত অন্তরঙ্গ কিছু ছবি ও ভিডিও আছে। যদি আপনি ৬,০০,০০০/- (ছয় লক্ষ) টাকা আমাদের দেন তাহলে আপনার মোবাইল ফোনটি আপনার কাছে হস্তান্তর করব অন্যথায় আপনার আপত্তিকর সকল ছবি ও ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আপনার আত্মীয়-স্বজনদের কাছে পাঠিয়ে দিবো বলে ফোনটি কেটে দেয়’’। পরবর্তীতে, ভিকটিম কোন প্রকার টাকা প্রদান না করলে উক্ত আসামীদ্বয় টাকার জন্য তাকে বিভিন্ন হুমকি-ধামকি সহ ভয়ভীতি প্রদর্শন করতে থাকে। বিষয়টি তিনি তার পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনদের সাথে আলোচনা করে সকলের পরামর্শে ০৫/০৮/২০২২ইং তারিখ বিকালে কুমিল্লা র‌্যাবের কাছে একটি অভিযোগ দায়ের করলে র‌্যাব-১১, সিপিসি-২, কুমিল্লা ক্যাম্প উক্ত অভিযোগটি আমলে নিয়ে ছায়া তদন্ত শুরু করেন। ছায়া তদন্তে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ পূর্বক উক্ত তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে র‌্যাব এর একটি আভিযানিক দল গত ০৬/০৮/২০২২ইং তারিখ রাত ০৯:০০ ঘটিকার সময় আসামী ১। মোঃ সাইফুল ইসলাম@বাবু(২৩) ও ২। মাহমুদুল হাসান@সায়েম(২১)-দ্বয়কে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানাধীন সিটি কর্পোরেশন ওয়ার্ড নং-১৩, অভয় আশ্রম সাকিনস্থ অভয় আশ্রম মার্কেট জনৈক হরিমোহন পাল (৫৮), পিতা-মৃত বিশ^ম্বর পাল এর মাতৃ রেডিং ষ্টোর নামক দোকানের সামনে হতে ভিকটিমের মোবাইল ফোনসহ গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয় স্বীকার করে যে, তারা ১৭/০৭/২০২২ তারিখ বিকাল অনুমান ০২:৩০ ঘটিকার সময় ভিকটিমের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনটি প্রাইভেট হাসপাতাল (কুমিল্লা টাওয়ার) এ ইমার্জেন্সি কক্ষে কুড়িয়ে পায়। পরবর্তীতে যেহেতু মোবাইল ফোনটির পাসওয়ার্ড ছিলো না তাই মোবাইল ফোন থেকে তার ব্যক্তিগত অন্তরঙ্গ ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দেবে বলে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ৬,০০,০০০/- (ছয় লক্ষ) টাকা দাবী করে। পরবর্তীতে, ভিকটিম টাকা দেওয়া কথা স্বীকার না করলে ১ নং আসামী মোঃ সাইফুল ইসলাম@বাবু(২৩) তার ব্যক্তিগত Iphone এর মাধ্যমে লগ ইন করে ”Azm Shamim’  নামে একটি ফেইক ফেসবুক একাউন্ট খুলে ভিকটিমের আত্মীয়-স্বজনের কাছে তার ব্যক্তিগত ছবি পাঠায় বলে স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়কে জিজ্ঞাসাবাদে তারা আরো স্বীকার করে ভিকটিমের মোবাইল ফোনটি ব্যবহার করে তারা পরস্পর যোগসাজসে বর্ণিত কাজ সম্পাদন করে।

উক্ত বিষয়ে গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পর্ণোগ্রাফির মতো সামাজিক অপরাধের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানায় র‌্যাব । সংবাদ প্রকাশঃ  ০৭-০-২০২২ইং সিটিভি নিউজ এর  (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like  See More =আরো বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন=  

Print Friendly, PDF & Email