নাটকে অভিনয় করে প্রশংসিত ফজলুর রহমান বাবু

সিটিভি নিউজ।।       ফজলুর রহমান বাবু  জন্ম আগস্ট ২২, ১৯৬০  অভিনেতা এবং সঙ্গীতশিল্পী। তিনি সংক্ষেপে বাবু নামে অধিক পরিচিত।  ১৯৬০ সালের ২২ আগস্ট ফরিদপুরে জন্মগ্রহণ করেন বাবু। তার বেড়ে ওঠাও সেখানেই। মাত্র ১২ বছর বয়সে স্থানীয় পর্যায়ে মঞ্চ নাটকের সঙ্গে যুক্ত হন তিনি। ১৯৭৮ সালে ফরিদপুরের ‘টাউন থিয়েটার’ দিয়েই তার অভিনয়ের শুরু।  পাঁচ বছর পর ১৯৮৩ সালে ফজলুর রহমান বাবু ব্যাংকে চাকরি নেন এবং বদলি হয়ে ঢাকায় আসেন। ঢাকায় এসে তিনি যোগ দেন ‘আরণ্যক’ নাট্যদলে। এখানে তিনি বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করে প্রশংসিত হন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ‘পালা’, ‘পাথর’, ‘ময়ূর’ ও ‘সিংহাসন’।

১৯৯১ সালে শুরু হয় ফজলুর রহমান বাবুর টেলিভিশন ক্যারিয়ার। সে বছর কাজী নজরুল ইসলাম রচিত ‘মৃত্যু ক্ষুধা’ নাটকে অভিনয় করেন তিনি। আবু জাফর সিদ্দিকী পরিচালিত এই নাটক প্রচার হয়েছিল বিটিভিতে।

প্রথম দিকে হাস্যরসাত্মক চরিত্রে বেশি অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু। তবে বর্তমান সময়ে তিনি সিরিয়াস চরিত্রেই বেশি অভিনয় করেন। আর দর্শকরাও তার গভীর অভিনয়ে বেশি ভালোলাগা খুঁজে পায়।

ফজলুর রহমান বাবু অভিনীত নাটকগুলোর মধ্যে রয়েছে- ‘পাঞ্জাবিওয়ালা’, ‘৫১বর্তী’, ‘দৈনিক তোলপাড়’, ‘রঙের মানুষ’, ‘ঘরকুটুম’, ‘ব্যস্ত ডাক্তার’, ‘ঘটক পাখিভাই’ ‘হাটকুড়া’ ইত্যাদি।

চলচ্চিত্রের পর্দায় ফজলুর রাহমান বাবু নিজেকে আরও মেলে ধরেছেন। বড় পর্দায় তার অভিনয় দাগ কেটেছে দর্শকদের মনে। ২০০০ সালে শুরু হয়েছিল তার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার। প্রথম সিনেমার নাম ‘বিহঙ্গ’।

এরপর বাবু একে একে অভিনয় করেন নুরুল আলম আতিকের ‘চতুর্থ মাত্রা’,। আবু সাইয়ীদের ‘শঙ্খনাদ’, দিদারুল আলম বাদলের ‘না বলোনা’, এনামুল করিম নির্ঝরের ‘আহা!’, তৌকীর আহমেদের ‘দারুচিনি দ্বীপ’, ‘অজ্ঞাতনামা’ ও ‘হালদা’, মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘মেড ইন বাংলাদেশ’, গিয়াসউদ্দিন সেলিমের ‘মনপুরা’ ও ‘স্বপ্নজাল’, নাদের চৌধুরীর ‘মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’, বদরুল আনাম সৌদের ‘গহীন বালুচর’, রায়হান রাফির ‘পোড়ামন ২’ ও ‘দহন’, মিজানুর রহমান লাবুর ‘নুরু মিয়া ও তার বিউটি ড্রাইভার’ সিনেমাগুলোতে।

এর মধ্যে ‘শঙ্খনাদ’, ‘মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’ এবং ‘গহীন বালুচর’ সিনেমার জন্য তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন ফজলুর রহমান বাবু। এছাড়া তিনি দুইবার মেরিল প্রথম আলো পুরস্কার ও দুইবার আরটিভি স্টার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।

অভিনয়ের পাশাপাশি গানেও দক্ষ ফজলুর রহমান বাবু। ‘মনপুরা’ সিনেমায় তার গাওয়া দুটি গান ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছিল। যার সুবাদে তিনি পেশাদার কণ্ঠশিল্পী হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেন। ২০০৮ সালে তিনি ‘মনচোরা’ অ্যালবামে চারটি গান করেন। এরপর ২০০৯ সালে তিনি প্রথম একক অ্যালবাম ‘ইন্দুবালা’ প্রকাশ করেন

তিনি শতাধিক বাংলাদেশি টেলিভিশন নাটক, তার সাথে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র এবং বহু টেলিভিশন বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন। তিনি ২০০৪ সালে নাট্যধর্মী শঙ্খনাদ এবং ২০১৬ সালে মেয়েটি এখন কোথায় যাবে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। তার অভিনীত অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র সমূহ হল দারুচিনি দ্বীপ (২০০৭), মনপুরা (২০০৯), অজ্ঞাতনামা (২০১৬), এবং হালদা (২০১৭)। সংবাদ প্রকাশঃ  ২৮২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=

Print Friendly, PDF & Email