সরকারি খাল দখল করে ভবন নির্মাণ জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন নিরব

সিটিভি নিউজ।।     আবদুর রহিম, মনোহরগঞ্জ (কুমিল্লা) সংবাদদাতা জানান ===কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার দঃ ঝলম ইউনয়নের মির্জাপুর-নরহরিপুর দিঘীর পশ্চিম পাড় ঘেঁষে সরকারি খাল দখল করে ভবন নির্মাণ করছেন মির্জাপুর গ্রামের মৃত আরব আলী ব্যাপারীর ছেলে ভূমিখেকো প্রভাবশালী মাওঃ আবদুল জব্বার, মৃত আলী আকবরের ছেলে সৌদি প্রবাসী মোঃ দুলাল হোসেন। এছাড়াও খালটি দখল করে মাটি ভরাট করেন মৃত সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে জাফর, মৃত আবদুল মন্নানের ছেলে সফিকুর রহমান, মৃত সেকান্তর আলী র ছেলে আমিনুল হক, মৃত আবদুল হামিদের ছেলে মোসলেম মিয়া, মৃত ছেরাজুল হকের ছেলে মোর্শেদ মিয়া, সামছুল হকের ছেলে নূর মোহাম্মদ। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় সরকারি খাল দখল করে ভবন নির্মাণ করছেন মাওঃ আবদুল জব্বার ও প্রবাসী মোঃ দুলাল হোসেন। মাওঃ আবদুল জব্বারের সাথে কথা বললে তিনি বলেন আমি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমানের সাথে কথা বলেছি এবং ওয়ার্ড মেম্বার জাহাঙ্গীর আলমও বিষয়টি জানেন আপনি ওনাদের সাথে কথা বলেন। প্রবাসী দুলাল জানান আমি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্টু প্রফেসার, জাহাঙ্গীর মেম্বার এবং চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলে আমি ভবন নির্মাণ করছি। আবদুল জব্বারের ছেলে জহির বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নায়েব দেখে গিয়েছেন। আপনি পত্রিকায় নিউজ করে কিছু করতে পারলে করেন। এলাকাবাসি জানান এই খালটি দিয়ে একসময় নৌকা চলাচল করত। এবং মির্জাপুর, নরহরিপুর, দেবপুর দৈয়ারা ও মেহেলদার কোট সহ আট-দশটি গ্রামের কৃষকদের মাঠের পানে নিষ্কাশন হত। কিন্তু বর্তমানে খালটি দখল হওয়ায় মাঠের পানি নিষ্কাশনে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এলাকাবাসীর প্রাণের দাবী খালটি দখল মুক্ত করে পুনরায় খালটি পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা। ১নং সরকারি খাস খতিয়ান মির্জাপুর মৌজা দাগ নং ৫৫৬ হালে ১২৪৯ পরিমাণ ৬৬ শতক জায়গা দখল করেন। ঝলম দঃ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নায়েব মজিবুর রহমান বলেন আমি সরেজমিনে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়েছি ছবি তুলে এবং লিখিত প্রতিবেদন উপজেলা ভূমি অফিসে জমা দিয়েছি। ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান বলেন আমার ইউনিয়নে কোথাও কেউ সরকারি জায়গা দখল করে থাকেন এবং পানি নিষ্কাশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্বাহী অফিসারকে বলা আছে। মেম্বার জাহাঙ্গীর বলেন তারা খুব প্রভাবশালী উশৃঙ্খল লোক আমি ভবন নির্মাণ করতে নিষেধ করি। আমি প্রশাসনকে বিষয়টি জানাব। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল রানাকে জানালে তিনি বলেন আমি বিষয়টি দেখব।

সংবাদ প্রকাশঃ  ২৯২০২১ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

(সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন)
(If you think the news is important, please like or share it on Facebook)
আরো পড়ুনঃ