লাকসামে নিজ ঘরে অবরুদ্ধ হতদরিদ্র বৃদ্ধা মাছুমা

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।।   মোজাম্মেল হক আলম  লাকসাম প্রতিনিধি: জানান ===
লাকসামে বেড়া দিয়ে হাঁটা-চলার পথ বন্ধ করে দেয়ায় হতদরিদ্র এক বৃদ্ধা ও তার কন্যা নিজ ঘরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে, উপজেলার আজগরা ইউনিয়নের লোলাই গ্রামের উত্তরপাড়ায়। প্রতিবেশী আবদুল জলিলের বিরুদ্ধে টিনের বেড়া দিয়ে বৃদ্ধার বাড়ি থেকে বের হওয়ার একমাত্র পথ বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।
জানা গেছে, ওই গ্রামের প্রায় ২ যুগ ধরে নিখোঁজ বাচ্চু মিয়ার স্ত্রী মাছুমা বেগম (৬০) একমাত্র কন্যা সন্তানকে নিয়ে ওই বাড়িতে বসবাস করছিলেন। সম্প্রতি তার একমাত্র সম্বল ৩ শতক জমিসমেত বাড়ির উপর প্রতিবেশী আবদুল জলিলের কুনজর পড়ে। মৃত. সাদেক আলীর ছেলে আবদুল জলিল বৃদ্ধা মাছুমাকে তাড়িয়ে দেয়ার উদ্দেশ্যে পথে বেড়া দেয়ায় গ্রামের সর্দার-মাতবরসহ বিভিন্ন জনের দ্বারস্থ হয়ে কোন সুরাহা পাননি। এতে ওই বৃদ্ধা মানবেতর জীবন যাপন করছেন।
হতদরিদ্র মাছুমা বেগম আরো জানান, অন্যের সাহায্য-সহযোগিতায় কোনো মতে খেয়ে-পরে দিনাতিপাত করছি। একমাত্র সম্বল এ বাড়িটুকুই। পাশের বাড়ির মৃত. সাদেক আলীর ছেলে আব্দুল জলিল বাড়ির চারপাশ টিনের বেড়া দিয়ে ঘেরাও করে হাঁটা-চলার পথ বন্ধ করে দিয়েছে। তারা আমাদেরকে বাড়ি ছেড়ে যেতে বাধ্য করার চেষ্টা করছে। আমি উপজেলা প্রশাসনের সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
এ বিষয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার মোবারক আলী জানান, আমরা মাছুমা বেগমকে আইনের আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দিয়েছি। কারন, বিবাদী আবদুল জলিল সমাজ মানেনা, কারো কথা শোনেনা।
ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বলেন, ইতিপূর্বেও একই অভিযোগ আসলে স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মিমাংশার চেষ্টা করেছি। কিন্তু আবদুল জলিল রায় মানে না। মানুষজনকে গালিগালাজ করে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম সাইফুল আলম বলেন, এটি ফোজদারী অপরাধ। তাদেরকে পুলিশের দারস্থ হওয়া উচিত।
লাকসাম থানার ওসি নিজাম উদ্দিন বলেন, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদ প্রকাশঃ  ১১২০২১ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email