ভূমি ও গৃহহীন লাখ লাখ পরিবারকে পাকা বাড়ি দেয়ার উদ্যোগ সরকারের

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।।     ভূমি ও গৃহহীনের পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। প্রতিটি বাড়ি নির্মাণে সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার টাকা। ৮ লাখ ৮২ হাজার ৩৩ পরিবারকে পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার কর্মসূচিতে সরকারের মোট ব্যয় হবে ১৫ হাজার ৮২ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প, ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছগ্রাম ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের নিয়ে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। আগামী মার্চের মধ্যে এ কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় নিয়ে কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীর ‘মুজিববর্ষে বাংলাদেশে কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না’ এমন নির্দেশের পর এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর বছরে অর্থাৎ মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর এটিই হবে বিশেষ উপহার। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, নদীভাঙনে এদেশে বিপুলসংখ্যক মানুষ গৃহহারা হয়। দেশের কিছু মানুষ এখনো ভূমিহীন ও গৃহহীন। সরকার মুজিববর্ষের ভেতরেই গৃহহীনদের ঘর করে দেবে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন, বাংলাদেশের একটা মানুষও গৃহহীন থাকবে না। বিগত ২০১৮ সালের জুলাইয়ে সরকার জাতির পিতার জন্মশতবর্ষ উদযাপনে ২০২০-২১ সালকে ‘মুজিববর্ষ’ ঘোষণা করা হয়। জাতির পিতার জন্ম তারিখ অর্থাৎ ১৭ মার্চ থেকে শুরু হয়ে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ পর্যন্ত মুজিববর্ষের কর্মকাণ্ড চলবে।
সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী বিগত ২ মার্চ মন্ত্রিসভার অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গে সমন্বয় করে মুজিববর্ষের কর্মসূচি গ্রহণের নির্দেশনা দেন। তিনি নির্দেশনা দেন অহেতুক নতুন কর্মসূচি না নিয়ে মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে নিজেদের বাজেট থেকে মানুষের কল্যাণ ও দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারে এমন কর্মসূচি নেয়ার। তারপরই দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে হতদরিদ্রদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি দেয়ার প্রকল্পটি মুজিববর্ষ উপলক্ষে কর্মসূচি হিসেবে ঘোষণা দেয়া যেতে পারে প্রস্তাব করা হয়। লক্ষ্য ধরা হয়েছে প্রতিটি গ্রামের একজন করে মোট ৬৮ হাজার ৩৮টি পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হবে। দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবটি বিবেচনায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ ও গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের কর্মকর্তাদের নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক করে তা চূড়ান্ত করা হয়।

সূত্র আরো জানায়, দেশে ৮ লাখ ৮২ হাজার ৩৩টি গৃহহীন পরিবার রয়েছে। ওসব পরিবারকে পাকা বাড়ি করে দেয়া হবে। আর তা হবে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার। এক তলাবিশিষ্ট দুই বেডের এই পাকা বাড়িতে থাকবে ড্রয়িংরুম, বারান্দা, টয়লেট, কিচেনসহ একটি পরিবারের বসবাসের উপযোগী বাসগৃহ। আপাতত এ প্রকল্পে দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের টিআর-কাবিখার কর্মসূচির সোলার প্যানেল ও বায়োগ্যাস বাবদ ৫০ শতাংশ খরচ স্থানান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের অর্থও সমন্বয় করে এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। আগে এসব প্রকল্পের ঘরগুলো ভিন্ন ডিজাইনের হতো। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এখন একই ডিজাইনের ঘর নির্মাণ করার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এবার সারা দেশের ৮ লাখ ৮২ হাজার ৩৩টি গৃহ ও ভূমিহীন পরিবারকে একটি পূর্ণাঙ্গ পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তার মধ্যে ভূমিহীন পরিবারের সংখ্যা ২ লাখ ৯২ হাজার ২৮৩টি এবং জমি আছে ঘর নেই এমন পরিবারের সংখ্যা ৫ লাখ ৮৯ হাজার ৭৫০টি। সেজন্য সুবিধাভোগীকে কোনো ধরনের টাকা-পয়সা খরচ করতে হবে না। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ইতোমধ্যে সুবিধাভোগীর তালিকা চূড়ান্ত করেছে। দ্রুত এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন শুরু হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এ বিষয়ে তাগিদও দেয়া হয়েছে।

সংবাদ প্রকাশঃ  ০৩১০২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email