বুড়িচংয়ে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে চটপটি দোকানে অগ্নিকান্ডে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি; অল্পের জন্য রক্ষা পেল ৩টি ব্যাংকসহ বিভিন্ন ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।।    সৌরভ মাহমুদ হারুন, বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধি ঃ
কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সদরে উপজেলা রোডে ইসলাম কমপ্লেক্সে’র পূর্বে পাশে শাহ্ আলম মার্কেটের ২য় তলা ভবনে একটি চটপটি দোকানে সকাল সাড়ে ৭টায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত ঘটে। কেউ বলছেন ফ্রিজের কমপ্রেসার বিস্ফোরনে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত। খবর পেয়ে বুড়িচং সদর ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম স্থানীয় বাজারের জনসাধারণ প্রায় ১ ঘন্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। এ সময় দমকল বাহিনী দু’জন কর্মী জুনায়েদ আহমেদ (২৩) ও গোলাম সারওয়ার (২৪) আহত হয়। তাদের বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
এদিকে অগ্নিকান্ডের ফলে সোহাগ চটপটি দোকানের দু’টি ফ্রিজ ও অন্যান্য মালামালসহ প্রায় ২লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। দুর্ঘটনার সময় চটপটি দোকানে কোন লোকজন না থাকায় প্রাণহানি থেকে বেঁচে যায়। অপরদিকে, ইসলাম কমপ্লেক্স ভবনের সোনালী ব্যাংক, কৃষি ব্যাংক ও ব্র্যাক ব্যাংকসহ বহু ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির হাত থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পান।
ফায়ার ফাইটার মোঃ আবু সালেক স্থানীয় সূত্রে জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার অফিস রোড ইসলাম কমপ্লেক্সে এর মার্কেটে পাশে আব্দুল করিম মার্কেটের ২য় তলায় সোহাগ চটপটি ও ফুসচা হাউজ দোকানে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে অগ্নিকা-ের সূত্রপাত ঘটে। আগুনের লেলিহান শিখায় ভবনের চারদিকে দ্রুত চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এসময় ইসলাম কমপ্লেক্সের সোনালী ব্যাংক, কৃষি ব্যাংকের মধ্যে মজুদ থাকয়া অগ্নি নির্বাপক ব্যবহার করে আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনে। খবর পেয়ে বুড়িচং ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা সোহেল রানার নেতৃত্বে একদল দমকল কর্মী ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফুচকা দোকানি সোহাগ জানান, অগ্নিকা-ে তার চটপটি ও ফুচক দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। পুড়ে যাওয়া দোকানের মধ্যে ২টি ফ্রিজ, ৩টি ফ্যান ও অন্যান্য সরঞ্জাম ছিল। স্থানীয়রা জানান, ফায়ার সার্ভিস সাথে সাথে আসার কারণে নিচের সিলভান ফ্যাশন, মোবাইল বাজার, ইসলাম কমপ্লেক্স , কৃষি ব্যাংক, ব্রাক ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংকসহ অন্যান্য দোকান অল্পের জন্য রক্ষা পায়। তবে ইসলাম কমপ্লেক্সের মালিক মফিজুল ইসলাম বলেন, ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের কারনে তার পাঁচ তলা ভবনের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে অল্পের জন্য ৩টি ব্যাংক অগ্নিকা-ের হাত থেকেু রক্ষা পায় এবং কোটি কোটি টাকা হেফাজত হয়।
খবর পেয়ে, বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাঃ সাবিনা ইয়াছমিন, বুড়িচং থানার ওসি মোঃ মোজাম্মেল হক (পিপিএম) ঘটনার স্থল পরিদর্শন করেন।

সংবাদ প্রকাশঃ  ২০১০২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email