না’গঞ্জে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ, এম আর কামাল, নারায়ণগঞ্জ থেকে জানান : নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন আদমজী ইপিজেডের বেকা গার্মেন্ট অ্যান্ড টেক্সটাইলের শ্রমিকরা।
বুধবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর থেকে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সড়কের একপাশ অবরোধ করে তারা এ কর্মসূচি পালন করছেন। এসময় শ্রমিকরা তাদের বকেয়া বেতন যথাসময়ে বুঝিয়ে দেওয়ার দাবি জানান।
তারা জানান, সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেড এলাকায় অবস্থিত বেকা গার্মেন্টস অ্যান্ড টেক্সটাইলসে অন্তত ৮ থেকে ৯’শ শ্রমিক কাজ করেন। তাদের কারও দুই মাস, আবার কারও তিন মাসের বেতন পাওনা রয়েছে।
রাকিবুল হাসান নামে আন্দোলনরত একজন জানান, বেকা গার্মেন্টস অ্যান্ড টেক্সটাইল ৩ মাস ধরে শ্রমিকদের বেতন বকেয়া রেখেছে। মালিক কর্তৃপক্ষ বেতন দেওয়ার কথা বললেও এখনো পর্যন্ত কাউকেই বুঝিয়ে দেয়নি।
সফুরা খাতুন নামে এক নারী শ্রমিক জানান, বেতন না পাওয়ায় তারা কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। কষ্টের কথা মালিকপক্ষকে বারবার জানিয়েও কোনো লাভ হচ্ছে না। একদিকে রমজান মাস, আবার সামনে চলে আসছে ঈদ, বাড়ি ভাড়া বাকি, ছেলে মেয়ে নিয়ে অনেক কষ্টে দিন পার করছি, মালিক পক্ষ বেতন দিচ্ছেন না। তাই বাধ্য হয়ে অবরোধ করে আন্দোলন করতে হচ্ছে।
এর আগে বেকা গার্মেন্টস অ্যান্ড টেক্সটাইলের শ্রমিকরা গত শনিবার (২১ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে শিমরাইল-আদমজী সড়ক অবরোধ করে বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছিলেন। তাদের শিগগিরই বকেয়া বেতন বুঝিয়ে দেওয়া হবে এমন আশ্বাসে বুঝিয়ে রাস্তা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তখন। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তাদের কারোরই বকেয়া বেতন পরিশোধ না করায় তারা বুধবার আবারো সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন।
নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশের (অঞ্চল-৪) সুপার আসাদুজ্জামান জানান, তিন মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে বেকা গার্মেন্ট অ্যান্ড টেক্সটাইল শ্রমিকরা দুপুর থেকে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন। আমরা এর আগেও মালিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কয়েকবার যোগাযোগ করেছি। সে সময় তারা বলেছিলেন শ্রমিকদের বকেয়া বেতন বুঝিয়ে দেবে। কিন্তু তা না করে গত কয়েকদিন ধরে মোবাইল বন্ধ করে রেখেছে। তাই তাদের সঙ্গে আর যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে না। শ্রমিকরা বকেয়া বেতনের দাবিতে ন্যায্য আন্দোলনই করছে। তাদের প্রতি আমরা সহানুভূতিশীল আচরণ করছি। এছাড়া আমাদের আর কী বা করার আছে?। তবে কোনো রকম বিশৃঙ্খলা যেন না হয় সেদিকে আমরা সজাগ রয়েছি।

সংবাদ প্রকাশঃ  ২৭-০-২০২২ইং সিটিভি নিউজ এর  (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like  See More =আরো বিস্তারিত জানতে ছবিতে/লিংকে ক্লিক করুন=  

Print Friendly, PDF & Email