নওগাঁয় ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে বড় ভাইয়ের গর্ভবতী গৃহবধুকে মারপিট ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন
সিটিভি নিউজ।।  মোঃ খালেদ বিন ফিরোজ  নওগাঁ প্রতিনিধিঃ জানান ==
নওগাঁর মহাদেবপুরে এক গর্ভবতী গৃহবধুকে মারপিট ও শ্লীলতাহানির এবং অভিযোগ উঠেছে ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, উপজেলার ভীমপুর ইউনিয়নের বাগাচাড়া গ্রামে।
এ ঘটনায় ওই গৃহবধুর স্বামী শাহজাহান আলী বাদী হয়ে মহাদেবপুর থানায় ২জনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার বাগাচাড়া গ্রামের নূরুল ইসলাম বাদেশের ছেলে শাহজাদা হোসেন সোহাগ (২৫) ও নূরুল ইসলাম বাদেশের স্ত্রী সাজেদা বিবির (৫০) নাম উল্লেখ করে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পত্রে বাদী শাহাজান আলী সুজন উল্লেখ করেন,
আমার ছোট ভাই শাহজাদা হোসেন সোহাগ এর স্থানীয় হাট চকগৌরী বাজারে মুদী দোকান আছে। সেখান থেকে আমি বিভিন্ন মালামাল বাঁকীতে ক্রয় করি। কয়েকদিন আগে দোকানের সামান্য বাঁকি টাকা নিয়ে বিরোধ হয়। তারই জের ধরে, রবিবার রাত ১০টার দিকে বাঁকী টাকাকে কেন্দ্র করে আমার ছোট ভাই শাহজাদা হোসেন সোহাগ এর সাথে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে গালিগালাজ করতে থাকলে নিষেধ করলেও না শুনে ক্ষিপ্ত হয়ে তার হাতে থাকা লোহার রড, হাসুয়া, দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমাকে এ্যালোপাথারী মারপিট করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছিলাফোলা জখম করে। ডাক চিৎকারে আমার স্ত্রী কাজল রেখা এগিয়ে আসলে তাকেও হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে স্ত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছিলাফোলা, জখম করে। যখম করেও খান্ত হয়নি পরনে থাকা কাপর টানা হেচড়া করে শ্লীলতাহানি করে। আমার চিৎকার শুনে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে বিবাদীরা আমাকে সহ আমার স্ত্রীকে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায়।
এ বিষয়ে ভুক্তভোগী শাহজাহান আলী সুজন বলেন, আমাকে ও আমার গর্ভবতী স্ত্রীকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে হামলা ও মারপিট এবং স্ত্রী কাজল রেখাকে শ্লীলতাহানি করেছে আমার আপন ছোট ভাই যা মেনে নেয়ার মত নয়। তার সাথে আমার মা উল্টো বিষয়টি সুরাহা না করে ছোট ভাইয়ের পক্ষ নিয়ে আমার স্ত্রীকে শারিরিকভাবে মারপিট করে যা আমাকে চরমভাবে ব্যতিত করেছে। এর সুষ্ঠ তদন্ত করে দোষীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির জোর দাবী জানাচ্ছি।
ঘটনার অভিযুক্ত ব্যক্তি শাহজাদা হোসেন সোহাগ বলেন, আমাদের পারিবারিক কলহের জেরে আমার বড় ভাই শাহজাহান আলী সুজন মাকে মারপিট করে যা দেখে আমি মাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে আমাকেও আমার গায়েও হাত তোলে। সে সময় নিজেকে আত্বরক্ষাত্বে বড় ভাইকে সামান্য আঘাত করতে হয়। কিন্তু কোন গুরুত্বর আঘাত করিনাই। আর আমার ভাবিকে আমি সামান্যতম আঘাত বা শ্লীলতাহানি করিনাই। আমার এবং মায়ের নামে যে সব অভিযোগ তা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন যার কোন সত্যতা নাই।

মহাদেবপুর থানা (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে অবশ্যই প্রযোজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। (ফাইল ফটো)সংবাদ প্রকাশঃ  ০৬১০২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email