দেবিদ্বারে গৃহবধূ ধর্ষনের ঘটনায় মামলা

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ।।      মাহফুজ আহম্মেদ,দেবিদ্বার সংবাদদাতা জানান ===:
কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ গ্রামে গৃহবধূকে ২ জন মিলে ধর্ষণ ও পর্ণগ্রাফী ধারনে অভিযোগে একই গ্রামের প্রতিবেশি মৃত লতিফ মিয়ার ছেলে মোঃ হালিম (৩৫) ও মৃত রহিম মিয়ার ছেলে মোঃ এরশাদ মিয়া (৪০) বিরুদ্ধে চলতি মাসের এগারো তারিখ দেবিদ্বার থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেন জাফরগঞ্জ পশ্চিম পাড়া এলাকার রাছেল মিয়ার স্ত্রী তিন সন্তানের মা রোকসানা আক্তার (৩০) ।
তিন সন্তানের মা রোকসানা আক্তার (৩০) সাথে কথা বললে তিনি জানান,আমার বড় ছেলে মেহেদী হাসানকে   খোজাঁর জন্য মামলার দ্বিতীয় আসামী মোঃ এরশাদ মিয়ার বাড়ীর পাশে গেলে তখন মামলার প্রধান আসামী মোঃ হালিম ও দ্বিতীয় আসামী এরশাদ মিয়া আমাকে জোর করে টেনে হেচড়ে এরশাদ এর নিজ বসতঘরে নিয়ে যায়,এরপর হালিম ও এরশাদ গামছা দিয়ে আমার মুখ বেধেঁ ফেলে এবং তাদের কাছে থাকা বিভিন্ন অস্ত্র দিয়ে আমাকে ভয় দেখায় যদি তাদের কথামত কাজ না করি তাহলে আমাকে একবারে মেরে ফেলবে বলে জানায় জীবন বাচাঁতে তাদের কথায় রাজিঁ হই, এরপর পালাক্রমে দুইজন মিলে আমাকে ধর্ষণ করে এবং মোবাইল ফোনে আপত্তিকর ভিডিও ও ছবি ধারন করে রাখে । ঘটনার পর আমি ভয়ে কাউকে কিছু বলেনি ধর্ষনের ঘটনার তিন দিন পর হালিম আমাকে ডেকে নিয়ে এবং আবার তার সাথে বিছানায় যেতে বলে,যদি না যাই তাহলে ভিডিও গুলো ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকী দেয়,এরপর আমি বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অবগত করি । তাদের পরামর্শে দুই ধর্ষকের বিরুদ্ধে দেবিদ্বার থানায় ২০১২ সালের প্রর্ণগ্রাফি নিয়ন্ত্রন আইন ও ২০০০ সালের নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করি ।

সরেজমিন ঘুরে জানা যায়,রোকসানা আক্তারের স্বামী রাছেল মিয়ার সাথে আসামী দুইজনের দীর্ঘদিন যাবত জমি সংক্রান্ত জেরে কয়েকবার মামলা হামলার ঘটনা ঘটেছে । সেখান থেকেই সবসময় একজন আরেকজনকে বিভিন্ন ভাবে ঘায়েল করার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানা গেছে । স্থানীয়রা জানায় হালিম এর সাথে রাছেল এর স্ত্রী’র রোকসানা আক্তার পরকীয়া প্রেমের গুঞ্জন দীর্ঘদিনের । বেশ কয়েকবার এ বিষয়ে সামাজিক ভাবে মিমাংশার ঘটনা ঘটেছে । তবে এলাকাবাসীদের  দাবী ঘটনার সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে আসামীদের বিরুদ্ধে কঠিনতম ব্যবস্থা নেওয়া হউক ।

এ দিকে ধর্ষনের দায়ে অভিযুক্ত প্রধান আসামী হালিমের স্ত্রী জানায়,জমি সংক্রান্ত জের ধরেই এই মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে । মামলার পরবর্তী সময়ে আমার বাড়ী ঘর ভাংচুর করেছে রাছেল ও তার সহযোগীরা । আমি তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছি ।

এদিকে জাফরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন জানান,রোকসানা আক্তারের স্বামী রাছেল মিয়ার সাথে আসামীদের দীর্ঘ দিন যাবত জমি সংক্রান্ত জেরে বিরোধ রয়েছে ,তবে পরকীয় কিংবা অন্য কোনো সম্পর্কের বিষয়ে আমি বলতে পারব না ।

দেবিদ্বার থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত)মেজবাহ উদ্দিন জানান, ঘটনার সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে  প্রতিবেদন তৈরী হচ্ছে,বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

সংবাদ প্রকাশঃ  ২০১০২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email