কুমিল্লায় মহানগরীর  শিশুদের মাঝে জেলা প্রশাসকের বই বিতরণ

সিটিভি নিউজ।।    নেকবর হোসেন   কুমিল্লা প্রতিনিধি  জানান ==
কুমিল্লা জেলার বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে নতুন বই বিতরণ শুরু হয়েছে। বৈশ্বিক করোনা মহামারী বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। চলতি বছর উৎসব করে এই কার্যক্রম শুরু করা না হলেও নতুন বই হাতে পেয়ে অনেক খুশি শিক্ষার্থীরা। নতুন বছরের প্রথম দিন থেকে শুরু হওয়া এই কর্মসূচির আওতায় পর্যায়ক্রমে কুমিল্লা জেলার সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেই নতুন বই পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।
রবিবার (৩ জানুয়ারি) কুমিল্লা গুলবাগিচা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুমিল্লা জিলা স্কুল এবং কুমিল্লা কালেক্টরেট স্কুল ও কলেজ শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর । এই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার মো গোলাম মোস্তফা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবদুল মজিদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকিয়া আফরিনসহ আরো অনেকে।
মহমারি করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না থাকার কারনে প্রতি বছরের ন্যায় এই বছরে উৎসব মুখোর ভাবে বই বিতরণীয় অনুষ্ঠান করা যায়নি বলে জানান জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর,
কনকনে শীত এর মধ্যেই নতুন বই নিতে গুটি গুটি পায়ে বিদ্যালয়ে হাজির শিক্ষার্থীরা। বই হাতে পেয়েই শুরু হয় হই-হুল্লোড় আর বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস। আজ সকালে কুমিল্লা বিভিন্ন স্কুলের চিত্র ছিল এমনই।
করোনা মহামারির কারণে এবার উৎসব করে নতুন বই বিতরণ করা হচ্ছে না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। তবে উৎসব না হলেও নতুন বই হাতে পেয়ে অনেক খুশি শিক্ষার্থীরা।
করোনা পরিস্থিতিতে বাসায় থেকে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছিলো শিক্ষার্থীরা। নতুন বই পেয়ে শিক্ষার্থীদের উৎফুল্লতা বেড়ে গেছে বলে জানান কুমিল্লা কালেক্টরেট স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ নার্গিস আক্তার।সংবাদ প্রকাশঃ  ৩২০২১ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

(সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন)
(If you think the news is important, please like or share it on Facebook)
আরো পড়ুনঃ