কুমিল্লার সবজির বাজারে আগুনের উত্তাপ !

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন
সিটিভি নিউজ।।  নেকবর হোসেন   কুমিল্লা প্রতিনিধি  জানান ===
 ক্রমেই বেড়ে চলেছে কুমিল্লার বাজার গুলোতে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম। হঠাৎ করে বেড়ে গেল পেঁয়াজের দাম। সরকারের নানামুখি প্রচেষ্টা ও প্রশাসনের কঠোর নজরদারীর ফলে পেঁয়াজের ঝাঁজ কিছুটা কমতে না কমতেই বেড়ে গেল চালের দাম। এরই মধ্যে আবার আরেক দফা বেড়ে গেল শাক সবজির দাম। গতকাল কুমিল্লা নগরীর বিভিন্ন কাঁচা বাজার ঘুরে দেখা গেছে,৬০ টাকার নিচে কোন সবজি নেই। কাঁচা মরিচের ঝাল কয়েক দিন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে থাকার পর শনিবার সকালে আবার কেজি হয়ে গেছে তিনশ টাকা করে। সাধারণ ক্রেতাদের কথা, সবজির বাজারে আগুন লেগেছে যেন।
বাজার ঘুরে বিভিন্ন পর্যায়ের ক্রেতাদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, কুমিল্লা নগরীর কাঁচা বাজারের আগুনের উত্তাপ গিয়ে পড়েছে সাধারণ ক্রেতাদের ঘরে। নিত্য খেটে খাওয়া মানুষ গুলো পড়েছে চরম বিপাকে। একদিকে মহামারী করোনার কারণে আয় কম অন্য দিকে দ্রব্যমূল্যের উর্দ্বগতি। সব মিলিয়ে এক নাভিশ্বাস অবস্থা দাঁড়িয়েছে নগরীর নিম্মবিত্ত, নিম্ম মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবার গুলোতে। পেঁয়াজের পর বেড়েছে চাউলের দাম। এবার সবজিও বাড়তি দামের কাতারে। ভোক্তা অধিকারের অব্যাহত অভিযানের মধ্যে এবার সবজির দামও লাগাম ছাড়া। অস্বাভাবিক হারে সবজির দাম বাড়াতে কুমিল্লার খেটে খাওয়া ও সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রায় মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। দামের এই উর্ধ্বগতির কারন জানতে চাইলে বিক্রেতারা জানান পাইকারী দাম বাড়ার কারনে খুঁচরা বাজারে দাম বেড়েছে।
গতকাল রবিবার নগরীর রাণীর বাজার, নিউ মার্কেট বাজার, রাজগঞ্জ বাজার, চক বাজার, টমছম ব্রিজ বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সকল প্রকার সবজির দামেই গত সপ্তাহের তুলনায় বড় পরিবর্তন এসেছে। এই সপ্তাহে সব ধরনের সবজির দামেই পড়েছে উর্ধ্বগতির ছাপ। প্রায় সব ধরনের সবজির দামেই কেজি প্রতি ১০ টাকা থেকে ২০ টাকাও বেড়েছে। কোন কোন সবজি দাম বেড়েছে আরো বেশী। তবে সব চেয়ে বেশি বেড়েছে কাঁচা সমরিচের দাম। সবুজ কাঁচামরিচ প্রতি কেজিতে বেড়েছে ১১০ টাকা এবং কালো কাঁচা মরিচ বেড়েছে ৫০ টাকা ।
টমচম ব্রিজ বাজারের সবজি ব্যবসায়ী শাহ আলম জানান গত সপ্তাহে আলুর দাম ছিল ৩৫ টাকা চলতি সপ্তাহে তা ৪০ টাকা। পটল গত সপ্তাহে ছিল ৪০ টাকা চলতি সপ্তাহে ৬০ টাকা। ঝিঙ্গা ৬০ টাকায় বিক্রি হলেও তা এখন ৭০ টাকা দাঁড়িয়েছে। কড়লা গেল সপ্তাহে ছিল ৫০ টাকা আজ (শনিবার) দেখা গেছে ৬০ টাকা থেকে ৭০ টাকা। লাউ প্রতিটায় ১০-১৫ টাকা পর্যন্ত বাড়তি বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়াও বেগুন, ঢেরস, কইডা, কাকরল, জালি কুমড়া ও পটল কেজি প্রতি ৬০ টাকা বা তার বেশি বিক্রি করা হচ্ছে কিন্তু তা গত সপ্তাহে ৫০ টাকাতেই সীমাবদ্ধ ছিল।
মিষ্টি কুমড়া প্রতি কেজি ৩০ টাকা ছিল কিন্তু এই সপ্তাহে তা ১০ টাকা বেড়ে ৪০ টাকায় দাঁড়িয়েছে। বরবটি সিমের দাম ৩০ টাকা থেকে বেড়ে এখন ৯০ টাকা। পেপে প্রতি কেজি ২৫ টাকা থাকলেও বর্তমান দাম ৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। টমেটোর দাম ছিল ১০০ টাকা, চলতি সপ্তাহে তা ১২০ টাকা হয়েছে। সব প্রকারের শাকেই ৫ টা বেশি বিক্রি হচ্ছে। গাজর চলতি সপ্তাহে ৮০ টাকা কিন্তু গত সপ্তাহে তা ছিল ৭০ টাকা। গত সপ্তাহের ৫০ টাকার করলা এই সপ্তাহে ২০ টাকা বেড়ে ৭০ টাকায় ঠেকেছে। দেশী শশা প্রতি কেজিতে ২০ টাকা ও মারফা শশা প্রতি কেজিতে ২৫ টাকা বেড়ে এখন ৬০ টাকা বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়াও কচু, লতি, ছড়া, কাঠ কচুতে ১০ টাকা করে বেড়েছে।
সবজি ব্যবসায়ী শাহ আলম আরও জানান, বৃষ্টি হলে সবজির দাম একটু বাড়ে। আর সবজি একটা কাঁচা পন্য যার দাম সব সময় একরকম থাকে না। বাড়বে আবার কমবে।
রাণীর বাজারে সবজি কিনতে আসা মৌ বেগম জানান, খালি ব্যাগ নিয়েই বাসায় ফিরবো। সামান্য কিছু নিয়েছি। এত দাম আর কখনও দেখি নাই।

এই বিষয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কুমিল্লা জেলার সহকারী পরিচালক মো. আছাদুল ইসলাম জানান, আমরা প্রতিনিয়তই অভিযান চালাচ্ছি। যদি জিনিসপত্রের উৎপাদন কমে গিয়ে দাম বাড়ে সেই ব্যাপারে আমরা কিছু করতে পারিনা। তবে দাম নিয়ে কেউ যদি কারসাজি করে তা আমরা দেখবো এবং প্রদক্ষেপ নিব।সংবাদ প্রকাশঃ  ২৮২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email