আড়াইহাজার থেকে অপহৃত স্বপ্নাকে উদ্ধার

সিটিভি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

সিটিভি নিউজ, এম আর কামাল, নারায়ণগঞ্জ থেকে জানান : নারায়ণগঞ্জের দেওভোগ থেকে অপহৃত স্বপ্না ধর (১৫) আড়াইহাজার উপজেলা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ পিবিআই বুধবার বিকালে স্বপ্নার মেডিক্যাল পরীক্ষা ও আদালতে জবানবন্দীর পর তাকে তার মায়ের হেফাজতে দেয়া হয়েছে। গত মাসের ১০ তারিখে স্বপ্নাকে নয়ন অপহরণ করে নিয়ে গেলে আদালতে মামলা দায়ের হয়। বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় অবস্থিত পিবিআই কার্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।
জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের খানপুর বৌবাজার এলাকার মতিনের ছেলে নয়ন (১৮) তার সহযোগীদের নিয়ে গত ১০ সেপ্টেম্বর বিদ্যানিকেতনের সামনে থেকে মাইক্রোবাসে স্বপ্নাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর মা রূপালী ধর বাদী হয়ে নয়ন সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল, নারায়ণগঞ্জ আদালতে পিটিশন (নং- ৩৪৯/২০২০) মামলা করেন।
আদালত উক্ত মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআই নারায়ণগঞ্জকে নির্দেশ দেন। পিবিআই নারায়ণগঞ্জ উপ-পুলিশ পরিদর্শক আবু সায়েম মামলাটির তদন্তভার গ্রহন করেন। মামলার তদন্তভার গ্রহন করার পর স্বপ্না ধরকে উদ্ধারের লক্ষ্যে জেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে। পরে মামলার নিয়োজিত গুপ্তচর ও আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে সংবাদ প্রাপ্তির পর মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম (পিপিএম), পুলিশ সুপার, পিবিআই নারায়ণগঞ্জ জেলা এর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধান ও দিক নির্দেশনায় তদন্তকারী অফিসার এর নেতৃত্বে একটি টিম স্বপ্নার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে আড়াইহাজার উপজেলার কল্যানদী এলাকায় অভিযান চালিয়ে স্বপ্নাকে উদ্ধার করে। উদ্ধারের পর স্বপ্নার মেডিকেল পরীক্ষা শেষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সং/০৩) এর ২২ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণ করার পর আদালতের নিদের্শে তাকে তার মায়ের জিম্মায় দেয়া হয়। তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক আবু সায়েম জানান, অপহরণের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে আভিযান অব্যহত রয়েছে।

সংবাদ প্রকাশঃ  ১৫১০২০২০ইং (সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে দয়া করে ফেসবুকে লাইক বা শেয়ার করুন) (If you think the news is important, please share it on Facebook or the like সিটিভি নিউজ@,CTVNEWS24   এখানে ক্লিক করে সিটিভি নিউজের সকল সংবাদ পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুনসিটিভি নিউজ।। See More =আরো বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন=   

Print Friendly, PDF & Email